বইকে রকমারি ডট কমে বেস্টসেলার বানাতে ৫ টি গুরত্বপূর্ণ টিপস

0

2

বইকে রকমারি ডট কমে বেস্টসেলার বানাতে ৫ টি গুরত্বপূর্ণ টিপস

  • 0
  • #লেখক কুঞ্জ
  • Author: রকমারি ব্লগ
  • Share

বর্তমান সময়ে পাঠকের বই প্রাপ্তির ক্ষেত্রে আস্থা ও ভালোবাসার এক জনপ্রিয় নাম রকমারি ডট কম, ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত বইয়ের সংখ্যা লক্ষাধিক। তাই সব বই একসাথে দেখানোও আমাদের পক্ষে সম্ভব হয় না। তবে ওয়েবসাইটে সেট করা আমাদের কিছু এলগরিদম এর উপর ভিত্তি করে বইগুলো বিভিন্নভাবে পাঠকের কাছে প্রদর্শিত হয় যেখানে আপনারা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারবেন। রকমারি ডট কম-এর মাধ্যমে বই বিপণন বাড়ানো প্রাথমিক লক্ষ্য হলেও অন্যতম লক্ষ্য থাকে বইয়ের নতুন নতুন পাঠক বাড়ানো, যেহেতু আমাদের উভয়েরই লক্ষ্য একই সেহেতু আমাদের অভিজ্ঞতা ও অবসার্ভেশন থেকে রকমারি ডট কম-এর ৫ টি বিষয় আপনাদের সাথে শেয়ার করছি যা বইয়ের বিক্রি ও পাঠক তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে-

 

১) বইয়ের বিষদ বর্ণনাঃ

  • কথার পেছনের কথাঃ বই সম্পর্কিত বর্ণনা বইকে পাঠকের  কাছে সুন্দরভাবে উপস্থাপনের ক্ষেত্রে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সেক্ষেত্রে শুধু ফ্ল্যাপে লেখা কথাগুলো আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে দেই, এর পাশাপাশি যদি বইটির  বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় (ফ্ল্যাপে লেখা অংশের বাইরে ) বর্ণনায় উপস্থাপন করা যায় তবে সেটার গ্রহন যোগ্যতা আরো বেড়ে যায় (অনলাইনের ক্ষেত্রে )। সেক্ষেত্রে বইটির লেখার পেছনের কিছু কথা কিংবা কোন ঘটনা সংক্ষিপ্ত বিবরণ আমরা বইয়ের বর্ণনায় দিতে পারি।
  • প্রশংসা/সম্মাননাঃ বইটি যদি কোন পুরস্কার পেয়ে থাকে কিংবা অন্য কোন সম্মাননা পেয়ে থাকে তবে সেটা বর্ণনায় উল্লেখ করে দেয়া, কিংবা পরবর্তীতে আপডেট করা যাতে করে পাঠক এই বইটির বিশেষ দিক সম্পর্কে জানতে পারে।
  • বই সম্পর্কে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির মূল্যায়নঃ বই সম্পর্কে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি তাদের মূল্যায়ন প্রকাশ করেন। বইয়ের সেই বর্ণনায় যদি গুরুত্বপূর্ণ মূল্যায়ন আমাদের সাইটে আপডেট করে দেয়া যায় তাহলে এটা পরোক্ষ একটা রেকমেন্ডেশন হিসেবে কাজ করবে। বইয়ের বিক্রির হার কমপক্ষে ৩০% বেড়ে যাবে।
  • বইয়ের ট্রেলার বানানোঃসম্ভব হলে বই নিয়ে ৩০ সেকেন্ড কিংবা সর্বোচ্চ ২ মিনিটের ট্রেলার বানানো। কিংবা বই নিয়ে ছোট ভিডিও বানানো ।

 

২) লেখক প্রোফাইল আপডেট করাঃ

বইয়ের বর্ণনার পাশাপাশি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে বইয়ের লেখক প্রোফাইল কে আরো আকর্ষণীয় ও সমৃদ্ধ করে তোলা। সেক্ষেত্রে যে বিষয়গুলোর দিকে আপনারা খেয়াল রাখতে পারেন ।

  • পুর্ণাঙ্গজীবন বৃত্তান্ত ও কর্ম সম্পর্কে আলোকপাত করা ( আমাদেরকে বায়োগ্রাফি পাঠালে আমরা সেটা সাইটে আপ্লোড করে দিবো,pr@rokomari.com  এই ঠিকানায় মেইল করতে পারেন )
  • প্রোফাইলে ছবি সংযুক্ত করা ।
  • সবগুলো বই এন্ট্রি করা আছে কিনা সেটা চেক করা ।
  • কাস্টমাইজURL ব্যবহার করা ( যেমন- আমাদের ওয়েবসাইটে যে অথার URL  দেয়া আছে সেটা হলো এই রকমঃ rokomari.com/book/author/100000/sadi  সেটাকে আরো সংক্ষিপ্ত করে ব্যবহার করা যেমনঃ www.rokomari.com/sadi, এটা যে নামেই চান করে দেয়া যাবে, সেক্ষেত্রে যে নামে চাচ্ছেন সেই নাম উল্লেখ করে author url সাবজেক্ট লাইন রেখে pr@rokomari.com অথবা – sadi@rokomari.com এই ঠিকানায় মেইল করতে পারেন।
  • নিজস্ব ব্লগ থাকলে সেটা লেখক প্রোফাইলে সংযুক্ত করা কিংবা ফেসবুক আইডি থাকলে সেটা যুক্ত করা।

 

৩) বইয়ের রিভিউ ও রেটিং বাড়ানোঃ

যে বইয়ের রিভিউ এবং রেটিং বেশি সেই বইয়ের বিক্রির হার রিভিউবিহীন বইয়ের চেয়ে ৫০% বেশি। ৫ রেটিংসহ ৫ টি রিভিউ এর চেয়ে ৪ রেটিংসহ ২৫ টি রিভিউ অনেক বেশি ইফেক্টিভ। যে বইয়ের মিনিমাম ১০ টি রিভিউ আছে সেটার বিক্রির হার অন্য বইয়ের তুলনায় বেশি। তাছাড়া আপনাদের যেহেতু ফেসবুকে প্রচুর ফলোয়ার থাকে সেহেতু আপনারা সোশ্যাল মিডিয়ায় পাঠককে রিভিউ লেখার জন্য উদ্বুদ্ধ করতে পারেন, এতে বই সম্পর্কে সবাই যেমন জানতে পারবে তেমনি গ্রহনযোগ্যতা তৈরি হবে।

আইডিয়াঃ  এডভান্স রিডার কপিঃ  বই প্রকাশের পূর্বেই পাঠক দিয়ে বইয়ের রিভিউ লেখানো যেতে পারে,  এতে বই প্রকাশের পূর্বেই বই নিয়ে পাঠকের কাছে এক ধরনের চাহিদা তৈরি হবে। পাশাপাশি যারা এই রিভিউ লেখার সুযোগ পাবে তারাও সেটা সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার করবে। তাছাড়া বইয়ের মূদ্রণের শেষ অংশে এমন কিছু রিভিউ রাখা যেতে পারে। এক্ষেত্রে একটা জয়েন্ট কোলাবোরেশন হতে পারে।

 

৪) ইনবাউন্ড লিংক তৈরি করাঃ

  • বর্তমান সময়ে যেহেতু সবক্ষেত্রেই অনলাইন মাধ্যম অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে সেহেতু ইনবাউন্ড লিংক বানানোর মাধ্যমে রকমারিতে বইয়ের বিক্রিতে বেশ ভালো ভূমিকা রাখতে পারেন। পাশাপাশি যেহেতু আমরা রি-মার্কেটিং টুলস ব্যবহার করি সেহেতু এটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। ইনবাউন্ড মার্কেটিং নিয়ে একটা বিস্তৃত লেখার ইচ্ছা আছে । এখানে শুধুমাত্র একটা ধারণা দেয়ার চেষ্টা করি।
  • বিভিন্ন ব্লগ সাইটে কিংবা অনলাইন পোর্টালে আপনারা অনেকেই লেখা-লেখিকরেন কিংবা আপনাদের পরিচিত অনেকেই আপনাদের অনেকের বই নিয়ে লেখা-লেখি করে থাকে। সেই লেখাগুলোতে যেহেতু আপনাদের সকল বই রকমারিতে আছে সেহেতু সেখানে আপনাদের রকমারির অথার লিংক কে হাইপার লিংক করে দিতে পারেন। সেই সাথে বইগুলোকেও হাইপার লিংক করে দিতে পারেন। যেহেতু এগুলো অনলাইন মাধ্যমে প্রচারিত হয় সেহেতু যে ভিজিটর সেই আর্টিকেলগুলো দেখবে তারা সেই লিঙ্কে ক্লিক করে রকমারি ডট কম এর ওয়েবসাইটে আসতে পারবে। সেখানে তারা সেই বইগুলো কিনতেও পারবে। আর যেহেতু আমরা রি-মার্কেটিং টুলস ব্যবহার করি সেহেতু তার সোশ্যল মিডিয়া কিংবা গুগলে সেই বইগুলোই বারবার দেখাবে। একটা স্টাডি থেকে দেখা গেছে এই ধরনের এক্টিভিটি বিক্রির সম্ভাবনা ৬০% বাড়িয়ে দেয়। এইক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আপনি রাখতে পারেন বিভিন্ন ব্লগে লিখে আর সেখানে রকমারির লিংক শেয়ার এর মাধ্যমে।

৫) সেলস ড্রাইভ-এ সহযোগিতাঃ

  • বইয়ের উইকিপিডিয়ায়পেইজ খোলার মাধ্যমে (সেখানে অবশ্যই রকমারির লিংক দেয়া, যাতে ভিজিটর বই খুঁজতে রকমারি ডট কম-এ আসে)
  • বই নিয়ে ইমেইল মার্কেটিং ( রকমারি ডট কম এর সাথে কোলাবোরেশন এর মাধ্যমে হতে পারে)
  • অথার পেইজে ভিজিটর বাড়ানোর মাধ্যমে ( যত বেশিভিজিটর তত বেশি বই খুঁজে পাওয়া ও বইকে মোস্ট ভিজিটেড লিস্টের কাতারে নিয়ে আসা)
  • বইয়ের ক্যাটাগরি ঠিক আছে কিনা সেটা চেক করা ।
  • বই নিয়ে বিভিন্ন কন্টেন্ট আমাদের ব্লগ সাইটে দিতে পারেন, সেখান থেকে বেশ ভালো কনভার্সন হবে সেটা আশা করা যায়। আমাদের ব্লগের লিঙ্কঃrokomari.com

Write a Comment