বইবন্ধু-১

0

60

বইবন্ধু-১

  • 0
  • #খোশগল্প
  • Author: Zahid Hasan
  • Share

বইবন্ধু…আমি নাঈমুর। আমি মোটামুটি ভালো ছাত্র। আমি গণিত একটু কম বুঝি। আর স্কুল বা কোচিং এ গণিত বিষয়ের ওপর ক্লাস টেস্টে খারাপ ফল হলেই বাবা বকা দেয়। তাছাড়া একমাত্র গণিতেই আমি এ প্লাস পাই না। যদিও আমি সপ্তম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষায় তৃতীয় হয়েছি। গণিতে ভালো করতে চাইলে এখন আমি কি করবো বইবন্ধু?

– প্রিয় নাঈমুর, তুমি সপ্তম শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষায় তৃতীয় হয়েছে তার মানে তুমি খুবই ভালো একজন ছাত্র। প্রতিটি মানুষেরই কিছু দুর্বলতা থাকে আর তোমার সেই দুর্বলতা গণিতের মাঝে। এই দুর্বলতাকে কাটিয়ে উঠতে চাইলে তোমাকে প্রথমেই যা করতে হবে তা হচ্ছে গণিতকে ভালবাসতে হবে। গণিত কঠিন বলেই তাকে ভালবাসতে হবে, গণিতের মাঝে মজাদার সব বিষয়কে খুঁজে বের করতে হবে। কম বুঝলে বড়দের সাহায্য নাও, মনে রাখবে না বুঝে কখনো অঙ্ক করবেনা। একবার যদি বুঝতে পারো তাহলেই দেখবে গণিত কতো মজার, সারাদিন কেবল অঙ্ক করতেই ইচ্ছে করবে। গণিতের মাঝে লুকোনো সব মজার মজার জিনিস নিয়ে লেখা চমক হাসানের “গণিতের রঙ্গে হাসিখুশি গণিত” বইটি তোমাকে পাঠিয়ে দিচ্ছি। বইটি পড়ে দেখো গণিতের মাঝেই কতো রহস্য, কতো মজার মজার কান্ড লুকিয়ে আছে। আমি নিশ্চিত তুমি গণিতকে ভালোবাসা শুরু করবে এবং সেই ভালোবাসাই তোমাকে ভালো রেজাল্টও এনে দেবে।

* প্রিয় বইবন্ধু…আমি ফাহিম মুবাশশির বলছি।আপনারা এডভেঞ্চার জাতীয় বই খুবই পছন্দ করি।আমার প্রিয় লেখক রকিব হাসান। রকিব হাসানের তিন গোয়েন্দা কিশোর,মুসা,রবিনের মতো আমরাও তিন বন্ধু মিলে একটি এডভেঞ্চার সংঘ খুলেছি। তুমি জেনে খুশি হবে আমরা ইতিমধ্যে আমাদের পাড়ায় তিনটি সমস্যার সমাধান করেছি। আমাদের খুব ইচ্ছা যে আমরা আরও সমস্যার সমাধান করব। কিন্তু আমাদের মা-বাবারা আমাদের এ কাজে বাধার সৃষ্টি করেন। তারা সারাদিন আমাদের পড়াশোনা করতে বলেন। তবে তুমি জেনে খুশি হবে আমরা কিন্তু পড়াশোনাও করি। কিন্তু তারা সেটা বুঝতেই চাইছেন না। তাই আমরা খুব হতাশায় ভুগছি। দয়া করে আমাদের একটা সমাধান দাও।প্লিজ..প্লিজ..প্লিজ।আমরা তিন বন্ধুই তোমার সাহায্য চাই।

– প্রিয় ফাহিম, তোমাদের এডভেঞ্চার সংঘর কথা শুনেই সত্যিই অনেক ভালো লাগছে। তোমার প্রিয় লেখক রকিব হাসান তিনিও নিশ্চয়ই খুশি হবেন তোমাদের এই সংঘর কথা শুনে। কিন্তু তুমি কি খেয়াল করেছ কিশোর-মুসা-রবিন যখন কোন সমস্যার সমাধান করে তখন কিন্তু ওদের সব বিষয়ে অনেক জ্ঞান থাকে তার মানে তারা অনেক কিছু জানে। রবিন যেমন লাইব্রেরীতে বই পড়ে অনেকটা সময় কাটায় তেমনি কিশোরও তার মগজ শাণ দিতে স্কুলে ঠিকমতো পড়তো, মুসা পড়াশুনায় একটু কাঁচা হলেও অভিজ্ঞতা থেকে অনেক কিছুই শিখেছে। তোমাদেরও তেমনি পড়াশুনা করে ঠিকমতো জ্ঞানার্জন করতে হবে এবং তোমাদের সমস্যা সমাধানে সেগুলোকে কাজে লাগাতে হবে। তোমাদের মা-বাবারা যখন দেখবে যে তোমরা পড়াশুনায় সিরিয়াস হয়েছ তখন ফ্রি টাইমে তোমরা যা ইচ্ছা করো কেউ বাঁধা দিতে আসবে না। কিন্তু পড়াশুনাটা শেষ করে, ঠিক আছে? তোমাদের জন্য আমি একটা বই পাঠিয়ে দিচ্ছি, ড. রাধা নাগের “পড়াশুনায় ভালো হতে হলে”। তিন গোয়েন্দার সব বই তো তোমাদের পড়াই আছে এবার নাহয় এমন একটা বই পড়ো যেটা তোমাকে খুব সুন্দর কিছু উপায় বলে দেবে পড়াশুনায় ভালো হবার জন্য।

Write a Comment